হুজুগে বাঙালী ও তথাকথিত নিউইর্য়ক টাইমসের সম্পাদকীয়

বাঙালী যে চরম হুজুগে জাতি, তা আবারো প্রমাণিত হলো।

গতকাল রাতে বিডিনিউজ২৪.কমের একটি খবরের শিরোনাম ছিল: "বাংলাদেশের ওপর নিষেধাজ্ঞার পরামর্শ নিউ ইয়র্ক টাইমসের"
এরপর বেশ কয়েকটি পত্রিকা ও ফেসবুকে গুঞ্জন উঠে, দ্য ইন্টারন্যাশনাল নিউইর্য়ক টাইমস পত্রিকার সম্পাদকীয় কলামে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক সহিংসতার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকারকে দায়ী করে বাংলাদেশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। 

দ্য ইন্টারন্যাশনাল নিউইর্য়ক টাইমস পত্রিকার অনলাইন ভার্সানের একটি পাতা হলো মতামত
সেই পাতাতেই গাঁজাখুরী আর্টিকেলটি ছাপা হয়।
আসলে এই আর্টিকেলটি হলো, দ্য ইন্টারন্যাশনাল নিউইর্য়ক টাইমস পত্রিকায় দেয়া জামাতিদের একটি মতামত মাত্র; যা নিউইর্য়ক টাইমসের সম্পাদকমন্ডলী এডিট করে ছাপিয়েছে।
এখানে, আমি-আপনিও যেকেউ মতামত দিতে পারবেন।
বাংলাদেশের পত্রিকাগুলোর কিছু ভুল বুঝে আর্টিকেলটি সম্পর্কে এভাবে খবর ছাপিয়েছে আর কিছু পত্রিকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে ছাপিয়েছে; ফেসবুকেও হয়েছে একই রকম।

সবাইকে শুধু বলি, এরকম প্রপোগান্ডায় কান দেবেন না; এগুলো বোকা বাঙালীকে ভড়কে দেবার জন্য জামাতি চাল বাদে আর কিছুই নয়।

দ্য ইন্টারন্যাশনাল নিউইর্য়ক টাইমস পত্রিকায় এই ধরণের সম্পাদকীয় আপনিও চাইলে ছাপাতে পারেন।
প্রথমে একই টপিকের (অবশ্যই রাজনৈতিক ও মানবিক বিপর্যয়) উপর বিভিন্নভাবে কমপক্ষে ৩০টি আর্টিকেল লিখুন। এরপর ৩০টি ভিন্ন মেইল-এড্রেস থেকে আর্টিকলেগুলো মেইল করে পাঠান।
দ্য ইন্টারন্যাশনাল নিউইর্য়ক টাইমসের সম্পাদকমন্ডলী আপনার প্রেরিত মেইলগুলোর প্রেক্ষিতে একটি সম্পাদকীয় লিখবে।

নিচের ছবিটি দেখুন:

সবাইকে আবারো বলি, জামাতি-প্রপোগান্ডায় কান দেবেন না।

জামাতি প্রপোগান্ডার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান...
জয় বাংলা...

Comments

Popular posts from this blog

মুক্তিযুদ্ধে নারী নির্যাতনে পাকিস্তানি মানস

অপারেশন সার্চলাইটঃ একটি পরিকল্পিত গণহত্যার সূচনা

বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডে চীনের ভূমিকা ও ভাসানীর দায়