একজন স্ত্রী লিঙ্গের মানুষ


ধরি সে একজন স্ত্রী লিঙ্গের মানুষ।

তার হাত সটান করে মাথার দুই দিকে ধরে রেখেছে একজন পুরুষ।

দুই পা দুই দিকে টান টান করে ধরে রেখেছে আরেকজন পুরুষ।
অন্য একজন পুরুষ তার কোমরের নিচে দুই পায়ের ফাঁকে নরম গর্তে নিজের উত্থিত লিঙ্গ প্রবেশ করছে আর বের করছে।

সেই স্ত্রী লিঙ্গের মানুষটির চোখের দৃষ্টি বিস্ফোরিত, আতংকিত, তীব্র ব্যাথায় মস্তিষ্ক-শরীর অবসাদগ্রস্থ।

পালা করে পুরুষটি আর তার সঙ্গীরা বেশ কয়েকবার স্ত্রী লিঙ্গের মানুষটির নরম গর্তে প্রবেশ করলো।

স্ত্রী লিঙ্গের মানুষটির রক্তে রক্তারক্তি চারপাশ; তার মুখ, ঠোঁট, বুক, স্তন, ঘাড়ে কুকুরের কামড়ের দাগের মত বড় বড় রক্তাক্ত গভীর দাগ।

সবাই হয়তো ভাবছেন, ছি:! কি নোংরা রুচিহীন বর্ণনা।

শুধু একবার সেই স্ত্রী লিঙ্গের মানুষটির জায়গায় নিজের মা-বোন-বান্ধবী-প্রেমিকা-বৌকে কল্পনা করুন তো।

আমি পারছি না, নিশ্চয় আপনিও পারবেন না; অথচ, এই নোংরা বর্ণনার মত করেই আমাদের মা-বোন-বান্ধবী-প্রেমিকা-বৌকে ধর্ষন করা হয়।

এই স্ত্রী লিঙ্গের মানুষটির বুকে আমরা সন্তান হয়ে মাথা রাখি, স্তন পান করি, প্রেমিক বা স্বামী হয়ে ভালোবেসে ঠোঁটে চুমু খাই, মুখে মুখ ঘঁষি, ভাই হয়ে স্নেহে বুকে টেনে নিই, বন্ধু হয়ে মাথার চুল টেনে দিই।

আমরা নিশ্চয় আমাদের এত কাছের মানুষগুলো কোন পশুর দেহের নিচে পিষ্ট হতে দিতে পারি না।

ভারতে সংঘটিত ধর্ষন নিয়ে চিন্তিত হয়ে আমাদের মাথার চুল পড়ে যায়; প্লিজ আসুন, এবার নিজের দেশের ধর্ষন নিয়ে চিন্তিত হই, ধর্ষন প্রতিরোধ করি।

#Stand_against_Rape


[ ফেসবুক লিংক ]

ছবি: দ্য রেইপ অব লুক্রেশিয়া।


.

Comments

Popular posts from this blog

মুক্তিযুদ্ধে নারী নির্যাতনে পাকিস্তানি মানস

বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডে চীনের ভূমিকা ও ভাসানীর দায়

অপারেশন সার্চলাইটঃ একটি পরিকল্পিত গণহত্যার সূচনা